সোহাগী ৱেল স্টেশনে

সোহাগী ৱেল স্টেশনে

এক সময়ে এক দেশে এক রাজা ছিলেন। রাজ্যে পানির খুব অভাব। রাজ্যের মানুষ পানির জন্যে খুব কষ্টে ভোগছেন। রাজা ঠিক করলেন বিশাল এক দিঘি কাটা হবে। তারপর রাজ্যের সকল কামার কুমার ঠিক করে সেনাপতী প্রকান্ড এক দিঘি কাটলেন। কিন্তু আশ্চর্য ঐ পুকুরে এক ফোঁটাও পানি নেই। রাজ্যের সবাই তাতে বিস্ময় ভাব ধারন করলো। তখন এক জতিষি বলল, “রাজন! আপনি আপনার কন্যাকে দিঘিতে নামিয়ে দিন। জল আসবে” । তারপর রাজা তার একমাত্র মেয়েটিকে পুকুরে নামিয়ে দিলেন। তারপর অমনি অমনি ঐ পুকুরে জল উঠা শুরু করলো।

মেয়েটির নাম ছিল সোহাগী। তার নামে ঐ দিঘিটির নাম রাখা হয় সোহাগী দিঘি এবং এই রেল ষ্টেশনটির নাম ও ৱাখা হয় সোহাগী রেল ষ্টেশন।

এভাবেই উচ্চ কন্ঠে গল্পটি বলতে বলতে পথ হাটে বেওয়াৱিশ পাগলটি। জানিনা ঐ দিঘি কিনবা স্টেশনেৱ সাথে তাৱ সম্পর্ক কী?

গল্পের বিষয়:
ছোট গল্প

Share This Post

আরও গল্প

সর্বাধিক পঠিত