ভালবাশি তো

ভালবাশি তো

-হ্যালো!!!(আমি) হাই!!(অদ্রিতা রহমান আইডি) এত রাতে এফবিতে কি করেন?? আপনাকে বলবো কেন?? তো কাকে বলবেন। আজাইরা প্যাচাল বাদ দিয়ে।নিজের পথ দেখেন। শুনেন না??? বলেন!! ভালবাশি তো!!!! স্যরি!!!! কি বললেন??? আমি আপনাকে ভালবাসি। এই আপনার সমস্যা কি??? চেনা না জানা না আচমকা ভালবাসি বললেই হলো।। আপনাকে আমার চাইতে বেশি কেউ
চেনে না বুঝলেন।

আমি আর কথা বলতে পারবো না বাই বাই!!! এই না!! না!! যাবেন না প্লিজ। তো বসে বসে আপনার বকর বকর বকর শুনবো। এই শুনেন না?? কি!!!! একটা পাপ্পি দেন না???? এরচেয়ে বরং ব্লকই খান!! ৫ মিনিট পর আনব্লক। ব্লক দিলে না আমার খুব কষ্ট হয়। তাতে আমার কি!!! হুম।এই শুনেন না!!! কি!!!! ভালোবাসি তো। আবার ব্লক দিব???? না প্লিজ ব্লক দিলে খুব কষ্ট হয়। তো আজেবাজে কথা বলছেন কেন? আচ্ছা বলবো না। হুম। এই শুনেন না???? আবার কি?? বিয়ে করবো!!!! তো করেন!!! আমায় বলছেন কেন??? আপনাকে করবো!! এইবার কিন্তু আবার ব্লক খাবেন। আচ্ছা রাতে খেয়েছেন কিছু?? না।

কেন?? আপনাকে কেন বলবো বলেন তো?? কেন কি সমস্যা! আমার সমস্যা নাই।আপনিই আমাকে ডিস্টার্ব করছেন!! আচ্ছা বলতে হবে না।ঘুমাবেন কখন?? ঘুমাবো না।সমস্যা??? না।।আমারো ঘুম আসছে না তো। আচ্ছা এক কাজ করলে কেমন হয়?? কি কাজ?? আমরা বরং গল্প করি!!! তাহলে সময়টাও কেটে যাবে। আপনার সাথে কেন গল্প করতে যাব। আরে শুধু টাইম পাস।আমিও ঘুমাবো না আপনিও ঘুমাবেন না।তাই গল্প করলে টাইম চলে যাবে। আমি গল্প পাই না। তাহলে আমিই বলি গল্প??? ওকে বলেন। তাহলে শুনেন। বলেন একটা ছেলে একটা মেয়েকে খুবি ভালবাসতো।কিন্তু মেয়েটা তাকে পাত্তা দিত না।ছেলেটা প্রতিদিন মেয়েটাকে একটা করে ফুল দিত।আর মেয়েটা ছেলেটাকে অপমান করতো। হুম।তারপর? কিন্তু ছেলেটা কখনো দমে যেত না। প্রতিদিনই প্রপস করতো।আর অপমান হত।এমনকি তিব্র জ্বর আসলেও ছুটে যেত মেয়েটার কাছে। তারপর। একদিন কি হলো জানেন।ছেলেটা ফুল নিয়ে দারিয়ে থাকতে থাকতে দেখলো মেয়েটা অন্য একটা ছেলের হাত ধরে হাটছে।

ছেলেটার হাত থেকে ফুলটা পরে গেল। যাকে এত ভালবাসে সে অন্য একজনে সাথে এটা ছেলেটা সহ্য করতে পারলো না।এক দৌড়ে বাসায় চলে গেল।আর কখনো মেয়েটার সামনে আসে নাই।খুব ইচ্ছা করতো মেয়েটাকে দেখার কিন্তু যেত না মেয়েটার সঙ্গে।সারাদিন রাত কান্না করতো ছেলেটা।খাওয়া দাওয়াও ঠিকমত করতো না।সবসময় মেয়েটার কথা ভাবতো আর কান্না করতো। তারপর? তারপর একদিন আচমকা মেয়েটার সামনে পরে যায়।মেয়েটা প্রথমে ঠিক চিনতে পার নি।কারন খাওয়া দাওয়া ঠিকমত না করায় ছেলেটার শরীর শুকিয়ে যায় আর চোখের নিচে কালো দাগ পরে গেছে। তারপর তারপর মেয়েটা ছেলেটাকে চিন্তে পারে।আর শক্ত করে জড়িয়ে ধরে। কারন মেয়েটাও যে ছেলেটাকে ভালোবেশে ফেলেছে। হুম।তারপর?? তারপর ছেলেটা জানতে পারে যে সেদিনকার সেই ছেলেটা মেয়েটার বড় ভাই।তারপর তাদের মাঝে দুষ্টু মিষ্টি প্রেম শুরু হয়।ছেলেটা খুব শান্তশিষ্ট হলেও মেয়েটা খুব রাগি ছিল।

তারপর তারপর ছেলেটা আর মেয়েটার বিয়ে হয়।এবং ছোট্ট একটা সংসার শুরু হয়। রাগ, ভালবাসা, খুনশুটি,সুখ শান্তি সবই ছিল তাদের এই ছোট্ট সংসারে। তারপর তারপর একদিন কি হলো জানেন?? কি??? একদিন ছেলেটা একটা অন্ধ মেয়ের হাত ধরে রাস্তা পার করে দিচ্ছিল এই অবস্থায় মেয়েটা দেখে ফেলে তার সামি অন্য মেয়ের হাত ধরে আছে!! সত্যি কি এই ব্যাপার ছিল??? হুম।।তারপর মেয়েটা ছেলেটার উপর রাগ করে বাপের বাড়ি চলে যায়। ছেলেটার একটা ফোনো রিসিভ করে না। তারপর। ছেলেটা তো মেয়েটাকে জড়িয়ে না ধরলে ঘুমাতে পারে না।মেয়েটাও পারে না।

হুম। রাতে প্রতিদিন ছেলেটা ঐ মেয়েটার হাতে খেত।কিন্তু আজ মেয়েটা নাই তাই রাতে খেতেও পারে নাই।ছেলেটাতো খুব ভালোবাসে মেয়েটাকে কিন্তু মেয়েটাতো বুঝে না। হুম। ওই? কি!! ভালবাসি খুব!! আমিও পাগল। তাহলে ব্লক দাও কেন?? স্যরি সোনা আর দিব না। ঐ বউ?? কি বাবু। খুব খিদা পেয়েছে তো!! আজ একটু কষ্ট করে খেয়ে নাও কাল আমি এসে খাওয়ায় দিব। না। কেন বাবু??? তোমার হাতেই খাব?? কেমনে সোনা আমিতো বাবার বাসায় বলো???

ওকে তুমি নিচে চলে আসো। মানে? আমি নিচে দাড়িয়ে আছি!!! তুমি কি পাগল হয়ে গেছ।এত কষ্ট করে অফিস করে আবার এত দূর জার্নি করে এসেছো? আমি তো বউ পাগল! আর কোন রিপ্লে আসলো না। একটু পরেই গেট খোলার ক্যাচ ক্যাচ শব্দটা কানে এলো।আর প্রায় সাথে সাথেই আমার পাগলিটা গায়ের সব শক্তি দিয়ে দৌড় দিল।এক জোরে এস জাপ্টে ধরলো যে আর একটু হলেই পড়ে যেতাম।

শব্দ করে কাদছে আমার পাগলীটা।ওর কান্না কেন যেন সহ্য করতে পারি না সেই প্রথম থেকেই।পাগলীটাও পাগলের মত ভালবাসে আমাকে।এতটা যে কখনো কেউ ভালোবাসতে পারে আমার অদ্রিতাকে দেখেই বোঝা যায়। এই যে মিস্টার অনেক হয়েছে এখন চলুন।আপনাকে তো আবার খাইয়ে দিতে হবে।আমি কিন্তু পারবো না খাইয়ে ধরে।

আমি তো জানি।স্বার্থপর একটা। নিজে বউয়ের হাতে খাবে কিন্তু বউকে খাইয়ে দিবে না। ঐ বউ !! কি !!! পাপ্পি ? আবার ব্লক খেতে মন চাইছে নাকি ? ইইই বললেই হলো নাকি।আমার বউ আমার অধিকার আপনার কি হুম????

গল্পের বিষয়:
রোমান্টিক

Share This Post

আরও গল্প

সর্বাধিক পঠিত